সোনা কুড়াতে ভারতে সমুদ্রতীরে মানুষের ঢল!

সোনা কুড়াতে সমুদ্রের পাড়ে ভিড় জমিয়েছেন স্থানীয়রা। সমুদ্রের পানিতে হাত ডোবালেই নাকি সোনা মিলছে! তাই অন্তত একটি হলে সোনা কুড়িয়ে নিতে হবে। আর তা বিক্রি করে প্রচুর অর্থ উপার্জন করা যাবে। অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরীতে এভাবে সোনা কুড়ানো চলছে।

ইউ কোঠাপল্লির সাব ইনস্পেক্টর বি লোভা রাজু জানান, ঘূর্ণিঝড়ের নিভারের তাণ্ডবের পর শুক্রবার সকালে চার-পাঁচজন মৎস্যজীবী সমুদ্রের পাড়ে আসেন। তারা দেখেন সোনার মতো দেখতে হলুদ রঙের কিছু জিনিস পড়ে রয়েছে। তা তারা কুড়িয়ে নেন। এরপর নাকি বাজারে বেশ চড়া দামে তা বিক্রিও করেন। এ কথা ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই সোনার হদিশ মেলার খবর সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে।

বিষয়টি কানে আসামাত্র অনেকেই ভাবেন জেলেরা যখন পেয়েছেন তখন যে-ই যাবেন সেই কুড়িয়ে পেতে পারেন সোনা। আর মুহূর্তের মধ্যেই হয়ে যেতে পারেন বিপুল অঙ্কের অর্থের মালিক। তাই তো ভিড় জমান সমুদ্রের পাড়ে। কেউ সমুদ্রের তীরে বালির মধ্যে সোনার খোঁজে পাগল। তো কেউ সমুদ্রের জলের মধ্যে সোনার হদিশের আশায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটাচ্ছেন। ওই জেলেরা ছাড়া অন্য কেউ আর সোনার হদিশ পেয়েছেন বলে এখনো শোনা যায়নি।

জেলেদের দাবি, শুধু ঘূর্ণিঝড় নিভারের পরই নয়। অন্যান্য যেকোনও শক্তিশালী ঝড়ের পরই অন্ধ্রপ্রদেশের (Andhra Pradesh) সমুদ্রের তীরে কিংবা জলে সোনা পাওয়ার কথা রটে যায়। তার কারণ বৃষ্টির ফলে অধিকাংশ মন্দির জলমগ্ন হয়ে যায়। আর তখনই পুণ্যার্থীদের দান করা সোনা, মূল্যবান ধাতু, রত্ন ভেসে সমুদ্রে চলে আসার সম্ভাবনা তৈরি হয়। তাই কিছু মানুষ ভাবেন সমুদ্রের তলায় বা পাড়ে গেলেই হয়তো মিলতে পারে সোনা। সে কারণে এমন কাণ্ড বারবার ঘটে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*