হাটে ‘অতিরিক্ত গরমে’ ১৬ মণ ওজনের গরুর মৃত্যু

দীর্ঘ দিন ধরে নানা কষ্ট ও ত্যাগ স্বীকার করে একটি গরু প্রস্তুত করেন সেবুল মিয়া। কিন্তু নিমিষেই তার সেই ত্যাগ ও কষ্ট ধুলিসাৎ হয়ে গেছে। কয়েক লাখ টাকার আর্থিক ক্ষতির শিকার হয়েছেন। কারণ হাটে তোলার সঙ্গে সঙ্গেই অত্যধিক গরমে তার পালিত প্রায় ১৬ মণ ওজনের গরুটি মারা যায়।

আজ শনিবার বিকেলে মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে সিলেট নগরের কাজিরবাজার গরুর হাটে। এদিন বিক্রির জন্য ওই হাটে আনা হয় গরুটি। ব্যবসায়ীরা বলছেন, গরুটির ওজন ছিল অত্যধিক, প্রায় ১৬ মণ। হাটে অতিরিক্ত গরম থাকায় গরুটি মারা গেছে বলে মনে করছেন তারা।

জানা যায়, গরুর মালিকের নাম সেবুল মিয়া। তিনি সিলেটের দক্ষিণ সুরমার বাসিন্দা। বাড়িতে রেখে দীর্ঘদিন ধরে গরুটি লালন পালন করেন তিনি। কোরবানির ঈদ উপলক্ষে বিক্রির জন্য গরুটি তিনি নিয়ে আসেন নগরের সবচেয়ে বড় পশুর হাট কাজির বাজারে। কিন্তু হাটে আনার পরই অতিরিক্ত গরমে গরুটি মারা যায় বলে মনে করেছেন ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন নিমিষেই ধুলিসাৎ হওয়ায় বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেন সেবুল মিয়া। অনেকটা মূর্ছা যান তিনি। পরে তার সঙ্গে যারা হাটে এসেছিলেন তারা তাকে গাড়িতে তুলে বাড়িতে নিয়ে যান। পরে হাট কমিটির তত্ত্বাবধানে মৃত গরুটি একটি ঠেলাগাড়িতে করে সরিয়ে নেওয়া হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*